দেখে নিন রমজানের(২০২২) নতুন ক্যালেন্ডার

 

Ramadan 2022 Timetable: কবে থেকে শুরু হচ্ছে রমজান মাস? জানুন সেহরি ও ইফতারের সময়কাল
Image Credit Source: Istockphoto.Com

ইসলামি ক্যালেন্ডার অনুসারে নবম মাস হল রমজান মাস (Ramzaan)। ইসলাম ধর্মে এই মাসকে কোরবানি বা ত্যাগের মাস হিসাবে বিবেচনা করা হয়। ১২ মাস হলেও ইসলামি ক্যালেন্ডারে দিনের সংখ্যা ৩৫৪। তাই প্রতি বছর ১১ দিন করে এগিয়ে আসে রমজান মাস। তবে রমজান মাস (Ramdan) শুরু এবং শেষ পুরোটাই নির্ভর করে চাঁদ দেখা যাওয়ার ওপর। এই বছর আগামী ২ এপ্রিল রমজান মাস শুরু হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এর পরের দিন অর্থাৎ ৩ এপ্রিল থেকে শুরু হতে পারে রোজা (Roza)। এই সমগ্র বিষয়টাই চাঁদ দেখতে পাওয়ার ওপর নির্ভরশীল। এই নির্ভরশীলতার কারণে রমজান মাস কখনও ২৯ দিন তো আবার কখনও ৩০ দিনে শেষ হয়।

সাধারণত প্রথমে সৌদি আরব ও অন্যান্য পশ্চিমী দেশে এবং ভারতের বেশ কয়েকটি অংশে চাঁদ দেখা যায়।  তারপরের দিন ভারতের বাকি অংশে, পাকিস্তান, বাংলাদেশ এবং অন্যান্য দেশে চাঁদ দেখতে পাওয়া যায়। যেদিন চাঁদ দেখা যাবে, তার পরদিন থেকেই শুরু হবে রোজা, উপবাস। তাই আশা করা হচ্ছে ভারতে আগামী ২ এপ্রিল চাঁদ দেখা যাবে এবং ৩ এপ্রিল থেকে শুরু হবে রোজা। এরপর ২৯ থেকে ৩০ দিনের উপবাসের পর ‘ইদ-উল-ফিতর’ বা ‘ইদ’ পালিত হবে।

মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষদের কাছে রোজা একটি পবিত্র মাস। এই মাসেই আজ থেকে ১৪০০ বছর পূর্বে ইসলামের পবিত্র ধর্মগ্রন্থ কোরানের প্রথম শ্লোক হজরত মোহাম্মদের কাছে অবতীর্ণ হয়েছিল। তাই এই মাসে ২৯ থেকে ৩০ দিন পর্যন্ত রোজা রাখা হয়। ফজরের নামাজের মাধ্যমে শুরু হয় রোজা। রমজানের সময় রোজাদারদের দিন শুরু হয় সেহরি। সূর্যোদয়ের আগে সেহরি খেয়ে দিন শুরু করেন রোজাদাররা। তারপর সারাদিন ধরে চলে নির্জলা উপবাস এবং সূর্যাস্তের পর নমাজ ও ইফতারের মাধ্যমে সেই দিনের রোজা ভঙ্গ হয়। কলকাতায় সেহরির সময় ভোর ৪ টে ১৭ মিনিট এবং ইফতারের সময় বিকাল ৫ টা ৫১ মিনিট।

ইসলাম ধর্ম অনুযায়ী প্রতিটি মানুষের রোজা পালন করা উচিত। কিন্তু অসুস্থ, গর্ভবতী, কোনও মহিলা যদি স্তনদুগ্ধ পান করিয়ে থাকেন, ডায়বেটিক, বয়স্ক ব্যক্তিদের রোজা পালন করার প্রয়োজন নেই। এর পরিবর্তে তাঁরা ফিদিয়ার মাধ্যমে রোজার কর্তব্য পালন করতে পারেন। রমজানের সময় প্রতিদিন দরিদ্র ব্যক্তিদের খাবার দান করাই হল ফিদিয়া। আবার কেউ যদি কোনও দিন রোজা পালন করতে অক্ষম থাকেন, তাহলেও সেই দিন ফিদিয়ার মাধ্যমে ক্ষতিপূরণ দেওয়া যেতে পারে। এর পাশাপাশি রমজান মাস চলাকালীন ফজ্র (গোধূলি), ধুর (দুপুর), অস্র (বিকেল), মগ্রিব (সন্ধ্যা) এবং ইশায় (রাত) নমাজ পড়তে হয়।

ক্যালেন্ডার দেখতে নিচে ক্লিক করুন

রমজানের ক্যালেন্ডার ২০২২

Leave a Reply

Your email address will not be published.