গত ২৪ ঘণ্টায় কলকাতা ও সংলগ্ন এলাকায় ৩ জন ডেঙ্গি আক্রান্তের মৃত্যু!

রাজ্য সরকার ডেঙ্গি মোকাবিলায় ব্যর্থ বলে সরব হয়েছে রাজ্যের প্রধান বিরোধী দল বিজেপি। এই মর্মে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রীকে চিঠি পাঠিয়েছেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী।

রাজ্যে রোজই ডেঙ্গিতে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে চলেছে। বাড়ছে মৃত্যুর সংখ্যাও। এ বার একই দিনে কলকাতার দুই পৃথক হাসপাতালে মৃত্যু হল ২ ডেঙ্গি আক্রান্তের। সোমবার সল্টলেকের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ৩৬ বছর বয়সি এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। হাসপাতালের তরফে জানানো হয়েছে, সকাল ৯টা ৩৫ মিনিটে ‘মাল্টি অর্গান ফেলিওর’ এবং ‘সেপ্টিক শক’ এর কারণে মৃত্যু হয়েছে ওই ডেঙ্গি আক্রান্তের। সূত্রের খবর, মৃতের বাড়ি কেষ্টপুর এলাকায়.

অন্য দিকে, কলকাতার নীলরতন সরকার মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে এক ডেঙ্গি আক্রান্তের মৃত্যু হয়েছে। মৃতের নাম বুবাই হাজরা। ৩০ বছরের ওই যুবকের বাড়ি কলকাতার ট্যাংরা এলাকায়। ডেঙ্গির লক্ষণ-সহ একাধিক অসুখ নিয়ে গত ১ নভেম্বর হাসপাতালে ভর্তি করানো হয় তাঁকে। কয়েক দিন ধরে জ্বরে ভুগছিলেন বুবাই। সোমবার দুপুরে তাঁর মৃত্যু হয়েছে।

উল্লেখ্য, রবিবার দক্ষিণ দমদমের নাগেরবাজার এলাকার একটি হাসপাতালে মৃত্যু হয়েছে এক মহিলার। পরিবার সূত্রে খবর, গত ৩ নভেম্বর শিল্পী সাহা নামে ৫৪ বছর বয়সি ওই মহিলা ডেঙ্গি আক্রান্ত হয়ে নাগেরবাজারের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি হন। সেখানেই তাঁর মৃত্যু হয়। আবার গত ৫ নভেম্বর কলকাতার হাসপাতালে মৃত্যু হয়েছে মুর্শিদাবাদের এক বাসিন্দার। আবু সৈয়দ মহলদার নামে ওই ব্যক্তি ডেঙ্গির উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন। তাঁর আরও বেশ কিছু অসুখ ছিল বলে জানান হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

Leave a Comment